রবিবার , 21 জুলাই 2019
ব্রেকিং

লিসবনে বাংলাদেশী মৌ

নবকন্ঠ ডেস্ক —34

লিসবনের মূলধারায় এবং পর্তুগিজ মিডিয়ায় আলোচিত আলোকিত নাম মৌ ,শারমিন মৌ। ইতিমধ্যে লিসবনে বেশ কয়েকটি ফ্যাশন শো তে  অংশগ্রহণ করে শুধু নিজেকে প্রতিষ্ঠিত ডিজাইনারই করেননি তিনি তুলে ধরেছেন বাংলাদেশ কে , বাংলাদেশের পোশাককে।

পর্তুগালের  রাজধানী লিসবনে মার্তিম  মনিজ এলাকায় লিসবন সিটি কর্পোরেশন এর সহয়তায় অনুষ্ঠিত  বাংলাদেশি  মেলায়  শারমীন মৌ এর তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশী পোশাক শীল্পের ফ্যাশন শো অনুষ্ঠিত হয় গত রবিবার । বাংলাদেশি পোশাকে সজ্জিত হয়ে উপস্থিত বিদেশীদের বাংলাদেশি পোশাক শিল্পকে পরিচয় করে  দিতে মঞ্চে  উপস্থিত  ২৯টি দেশের মডেল।mou

এটা ছিল লিসবনে বাংলাদেশি পোশাক শিল্পের চতুর্থ বারের  মত বাংলাদেশী  পোশাকের ফ্যাশন শো। ফ্যাশন শোতে লিসবনে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের নব নিযুক্ত প্রথম সচীব মৌসুমী রহমান ,লিসবনের প্রশাসনিক কর্মকর্তা ,কমিউনিটির নেত্রীবৃন্দ ও দেশি বিদেশি মিডিয়ার শীর্ষ ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন । পুরো  অনুষ্ঠানটির  সার্বিক সহযোগীতায় ছিলেন লিসবন ই.জি.ই.এ.সি ,বাইরো ইন্টেনডেন্টে ,জুনতা ফ্রেগেসিয়া আরোয়োস এবং লিসবন সিটি কর্পোরেশন।

নবকণ্ঠ প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে মৌ জানান নিজ দেশের সংস্কৃতিকে বিশ্বের বুকে তুলে ধরতে পারাটা একটা গভীর আনন্দের। আমি আত্মবিশ্বাসী শুধু পর্তুগালে নয় সারা ইউরোপে বাংলাদেশের পোশাককে আলাদা স্থানে তুলে ধরতে7 পারবো।

মেলার  প্রথম পর্বে বাংলাদেশি দ্বারা পরিচালিত  রাঁধুনি  , স্পাইসি, শাহজালাল, ঘরোয়া, ঢাকা, ফুড ভিলেজ ,বেঙ্গল  ,ধানসিঁড়ি রেস্টুরেন্ট গুলো প্রদর্শন করে দেশীয় স্বাদের বিভিন্ন রকমারি খাবার ।অনুষ্ঠানের শেষের দিকে শাহজালাল রেস্টুরেন্ট এর পক্ষ থেকে মেলায় আগত অতিথিবৃন্দ নিয়ে বাংলা গানের ওপেন কনসার্ট  এর আয়োজন হয়.এতে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সাথে পর্তুগীজদের স্বর্তস্ফূর্ত আনন্দ করতে দেখা গেছে।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.