শনিবার , 20 অক্টোবর 2018
ব্রেকিং

মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদ’ ও ফ্রেঞ্চ বাংলা স্কুল এর সাংস্কৃতিক মেলা

দোলন মাহমুদ,প্যারিস ,ফ্রান্স –14207840_10154430671279593_1461753378536891110_o

গত শনিবার প্যারিসের পার্শ্ববর্তী লাকুরনভ শহরের মেরীর তত্ত্বাবধানে আন্তর্জাতিক এসোসিয়েশনের সমন্বয়ে  প্রতিবছরের ন্যায় এবারও  মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ মেলায় লাকুরনভ এলাকার ১২০টি এসোসিয়েশন অংশগ্রহণ করে। বিভিন্ন দেশের এসোসিয়েশনের মতো বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদ ফ্রান্স শাখা ও ফ্রান্স-বাংলা স্কুল একটি স্টল পরিচালনা করেন।  আন্তর্জাতিক এই মেলায় মুলত: অভিবাসী বিভিন্ন দেশের নাগরিকগণ তাদের দেশের কৃষ্টি, কালচার উপস্থাপন করার সুযোগ পায় এবং এ থেকে সংশ্লিষ্ট দেশ সম্পর্কে ফরাসী এবং অন্যান্য দেশের অভিবাসীবৃন্দ অবগত হনা ।

নির্ধারিত সময়ে লাকুরনভ মেরীর মেয়র ”জিন পুকস” মেলার উদ্বোধন করেন। এসময় তার সাথে ছিলেন সহকারী মেয়র ”আন্দ্রে জো হাকিন, পার্লামেন্টের ডেপুটি ম্যারি জোনস্ বুফে, ৯৩ এর ৪০টি উপশহরের প্রেসিডেন্ট স্টেফান ট্রুফেন এবং ৪২ এসোসিয়েশন হেড ড্যানিয়েল জিবারটিনি, বিভিন্ন ডেলিগেশন এবং অন্যান্য এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দসহ বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্বকারী মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদ ফ্রান্স শাখার সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জামিলুর ইসলাম মিয়া, সাধারণ সম্পাদক জাফর শাহ, সহঃসম্পাদক মোঃ আমিন খান হাজারী, কোষাধ্যক্ষ আনোয়ারুল হক, বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফ্রান্স’র সহ-সভাপতি আশরাফ ইসলাম, কমিউনিটি নেতা মিজান চৌধুরী মিন্টু, হুমায়ন, মোয়াজ্জেম হোসেন তারা, সাংবাদিক দোলন মাহমুদসহ বাঙালী কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ ও প্রবাসী বাংলাদেশী এবং বিভিন্ন দেশের নাগরিকবৃন্দ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ দুতাবাসের কাউন্সিলর হযরত আলী খান এবং ফ্রান্স বাংলা স্কুলের ডিরেক্টর হাসনাত জাহান, পরিচালক ফাতেমা মিয়া, শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্রছাত্রী বৃন্দ।

উদ্বোধনের পর অনুষ্ঠানের শুরুতে মেয়র ও নেতৃবৃন্দ প্রত্যেকটি স্টল ঘুরে দেখেন ও প্রবাসী বিভিন্ন দেশের এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দের সাথে কুশল বিনিময় করেন। এরপর বিপুল আগ্রহ নিয়ে শুরু হয় বিভিন্ন দেশের স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনায় মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। যেখানে বিকেল ০৪:৩০ মিনিটে বাংলাদেশ পর্বে অংশগ্রহণ করে মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদ ফ্রান্স শাখা পরিচালিত ফ্রান্স বাংলা স্কুলের ছাত্রছাত্রী বৃন্দ। স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা ও মুক্তিযোদ্ধা সংহিত পারিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জামিরুল ইসলাম মিয়া ও ডিরেক্টর হাসনাত জাহানের উপস্থাপনায় ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষিকা ফ্লোরার কন্ঠে গান ও নাচের মাধ্যমে বাংলাদেশের সংস্কৃতিকে তুলে ধরা হয়।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.