শুক্রবার , 19 অক্টোবর 2018
ব্রেকিং

ইবি ডায়রী থেকে বাদ গেল প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের নাম

দীর্ঘ সাতবছর পর প্রকাশিত হলো ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) পকেট ডায়েরি-২০১৭। প্রকাশিত পকেট ডায়েরি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের নাম।

১৯৭৯ সালে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন জিয়াউর রহমান। প্রতিষ্ঠার পর থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন প্রকাশনায় প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে জিয়াউর রহমানের নাম লেখা হতো। কিন্তু এবারের ডায়েরিতে তার নাম রাখা হয়নি।

রোববার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির কার্যালয়ে প্রেস প্রশাসক অধ্যাপক ড. রবিউল ইসলামের সঞ্চালনায় ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী, প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. শাহিনুর রহমান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. সেলিম তোহা, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ, তথ্য, প্রকাশনা ও জনসংযোগ অফিসের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) আতাউল হক উপস্থিত ছিলেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেস প্রশাসক ও পকেট ডায়েরি প্রকাশনা কমিটির আহ্বায়ক এবং বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রবিউল ইসলাম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে কেন ডায়েরি প্রকাশ হয়নি তার কারণ আমি জানি না। বর্তমান ভিসি স্যারের মতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব কাজে গতি ফিরে আনতে হবে। তারই ধারাবাহিকতায় ইবির ডায়েরি প্রকাশ করা হয়েছে।’
বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, ‘দেশের অন্যান্য সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ডায়েরিও প্রকাশ করা হয়েছে। নানা জটিলতার কারণে ডায়েরি প্রকাশ করতে বিলম্ব হলেও আমরা আগামী বছর থেকে যথাসময়ে ডায়েরি প্রকাশ করব।’

ইবি জিয়া পরিষদ সভাপতি প্রফেসর ড. তোজাম্মেল হোসেন বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস থেকে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়ার নাম মুছে দেওয়ার অংশ হিসেবে ডায়েরি থেকেও তার নাম বাদ দেওয়া হয়েছে। আমরা এর নিন্দা জানাই।’

আগে যেভাবে ডায়েরি প্রকাশ করা হয়েছে। এবারো সেভাবে প্রকাশ করতে হবে বলে দাবি করেন তোজাম্মেল হোসেন।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.