সোমবার , 18 জুন 2018
ব্রেকিং

মালয়েশিয়ায় বিদেশী কর্মী নিয়োগে কঠোর সরকার 

মালয়েশিয়ায় নতুন করে বিদেশী কর্মী নিয়োগের সিদ্ধান্তে কঠোর হয়েছে দেশটির প্রশাসন। নিয়োগপ্রাপ্ত শ্রমিকদের জন্য বাসস্থানে ন্যূনতম মান নির্দেশিকা মানতে ব্যর্থ হওয়ায়, দেশটির সংশ্লিষ্ট প্রশাসন কর্মীদের সার্বিক সুবিধা নিশ্চিত করার জন্য নতুন কর্মী নিয়োগে আরো কঠোর পন্থা অনুসরণ করছে।পুত্রাজাযায় এক রেস্টুরেন্টে আভিযান পরিচালনার পর সংবাদ সম্মেলনে উপদ্বীপসংক্রান্ত মালয়েশিয়া মানবসম্পদ বিভাগের উপ পরিচালক(অপারেশনস) ওয়ান জুলকিফ্লী ওয়ান এমন তথ্য জানান। এর ধারাবাহিকতায় বিদেশী কর্মীদের জন্য জমা দেয়া ৩ হাজার ২ শ ৯ টি আবেদন বা ৩০ শতাংই প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে ৷ জুলকিফলি বলেন, বিদেশী শ্রমিকদের বাসস্থান নির্মাণে নীতিমালা মেনে চলার পূর্বশর্ত ছিল ৷ যেখানে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ও নিরাপদ পরিবেশের অনুমোদন থাকবে এবং পুরুষ-মহিলা শ্রমিকদের পৃথক বাসস্থান আবশ্যক ৷ জুলকিফলি আরো বলেন, ‘নিয়োগকারীদের কর্মীর আবাসনের বিষয়টি হালকাভাবে নেওয়া উচিত নয় কারণ আমরা বিদেশী কর্মীদের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়েছি, বিশেষত যারা নির্মাণস্থল এবং নোংরা পরিবেশে কাঠের ঘরে বাস করে। বিদেশী কর্মীদের জন আবাসনে যে সকল নিয়োগদাতা সরকারের শর্ত পুরণে ব্যর্থ, ভবিষ্যতে তাঁদের আবেদনে কালো তালিতা ভুক্ত করা হবে।’

আবেদন প্রত্যাখানের প্রসঙ্গে তিনি জানান, নিয়োগ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের একটি বড় অংশই অন্য অপরাধগুলির তুলনায় কর্মী আবাসনের জন্য ন্যূনতম মান মেনে চলতে ব্যর্থ হয়েছে, ফলে সে সকল কোম্পানির আবেদন বাতিল করা হয়েছে ৷

অন্যদিকে, মালয়েশিয়ায় বংলাদেশ হাইকমিশন সূত্র জানায় , জিটুজি প্লাস প্রক্রিয়ায় এ পর্যন্ত প্রায় ৩২ হাজার ৫০০ জন বাংলাদেশী কর্মী মালয়েশিয়ায় এসেছেন এবং বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা যাচাই বাচাই শেষে আরও ৮০ হাজার কর্মীর চাহিদাপত্র বাংলাদেশে পাঠানো হয়েছে ।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.