বুধবার , 19 সেপ্টেম্বর 2018
ব্রেকিং

অঙ্কুর এবার পালেরমো শহরে

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ইতালীর পালেরমো শহরে ১৯ ফেব্রুয়ারী সোমবার, বিকাল ৫টায় একুশ আমার চেতনা শ্লোগানে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে অঙ্কুর এর ৮ম প্রয়াস। প্রবাসে বেড়ে ওঠা আগামী প্রজন্মকে বাংলাদেশের সঠিক ইতিহাস ভাষা, কৃষ্টি-সংস্কৃতি সহ নানান বিষয় সর্ম্পকে জানাতে অঙ্কুর বিগত ৭ বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় ১ম বারের মত পালেরমো শহরে Piazza Casa Professa, N.1′ তে অনুষ্ঠিত হচ্ছে অঙ্কুর প্রতিযোগিতা ২০১৮।

বাংলাদেশ তরুণ প্রজন্ম, পালেরমো সহযোগিতায় পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন অঙ্কুর প্রতিষ্ঠাতা ও অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেস ক্লাব এর সভাপতি মনিরুজ্জামান মনির, এছাড়াও বাংলাদেশ তরুণ প্রজন্ম‘র সাবেক সভাপতি এজাজ আল মাছুম প্রধান আলোচক এবং উদ্ভোধনী বক্তা হিসাবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ তরুণ প্রজন্ম‘র সভাপতি সাঈদুর কবির ও সাধারণ সম্পাদক মজনু আলীর পরিচালনায় বিশেষ অতিথি থাকবেন কমিউনিটির বিশিষ্ট্য ব্যক্তিবর্গ।

বর্ণমালা, আবৃতি, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার এই অনুষ্ঠানটি শিশুদের এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বাংলা ভাষা তথা বাংলাদেশের প্রতি আগ্র বাড়াতে অংশগ্রহণকারী সকল সোনামণিদের জন্য রয়েছে আকর্ষনীয় পুরস্কারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য অঙ্কুর শুধু ২১ ফেব্রুয়ারী নিয়ে আয়োজন করেনা। এ সংগঠনটি ইতালীতে সময় উপযোগী অনুষ্ঠান করে প্রবাসের শিশুদের সঠিক পথের নির্দেশক হিসাবেও কাজ করে যাচ্ছে।

অঙ্কুর ইতালীর গন্ডি পেড়িয়ে দেশের নানান সমস্যায় জড়িত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে, রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েছে, দাঁয়িছে বন্যা কবলিত মানুষের স্বপ্ন পূরনে, রানা প্লাজা ট্রাজেটিতে পঙ্গু গরীব গার্মেন্টস শ্রমিকদের আর্থিক অনুদানে অঙ্কুর ভরসা যোগিয়েছে। এছাড়াও অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ,গ্রীষ্মকালে অনাথ শিশুদের নিয়ে ফল উৎসব, পিঠা উৎসব সহ নানান সামাজিক কাজে আজোঅব্দি কাজ করে যাচ্ছে।

আপনারা জেনে খুশি হবেন যে, বাংলাদেশে ঢাকা‘র অদূরে ধামরাইতে একটি নৈশ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছে, সেখানে সুবিধা বঞ্চিত পথশিশুদের বিনামূল্যে শিক্ষা প্রদান করা হচ্ছে।

২১ ফেব্রুয়ারী মহান শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ৪ থেকে ১০ এবং ১০ থেকে থেকে ১৬ পর্যন্ত শিশুরা বয়স ভিক্তিক দুই ভাগে বর্ণমালা, আবৃতি, চিত্রাংকণ ও সংগীত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।

আয়োজকরা মনে করেন, বাংলাদেশের সঠিক গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস জানা প্রবাসের শিশুদের অধিকার আর আমাদের কর্তব্য। আপনার একটুখানি প্রচেষ্টাই আমাদের ভবিষ্যত এগিয়ে নিবে আগামীর বাংলাদেশ।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.