শুক্রবার , 25 মে 2018
ব্রেকিং

গ্যাব্রিয়েল পেরী কে ছিলেন?

ফ্রান্সের মেট্রো বা বাস স্টেশন কিংবা রাস্তা বা এভিন্যুগুলো কোন না কোন বিখ্যাত লোকের নামে করা হয়েছে। এদের মধ্যে সবচেয়ে বেশী যে নামটা দেখা যায় সেটা হলো গ্যাব্রিয়েল পেরী’র নাম। আসুন জেনে নিই গ্যাব্রিয়েল পেরী কে ছিলেন?

গ্যাব্রিয়েল পেরী ফ্রান্সের কম্যুনিস্ট মতাদর্শের একজন সাংবাদিক এবং রাজনীতিক ছিলেন। ১৯০২ সালের ৯ ফেব্রুয়ারী তুলনের একটি কর্সিকান পরিবারের জন্মগ্রহন করেন তিনি।রাশিয়ায় কম্যুনিস্ট বিপ্লবের সাফল্যে প্রভাবিত হয়ে লেখাপড়ার পাট চুকিয়ে বিপ্লবী রাজনীতিতে যোগ দেন পেরী। পাশাপাশি Aix-en-Provence এবং Marseille নামক পত্রিকায় সাংবাদিক হিসেবে কাজ শুরু করেন। মাত্র বাইশ বছর বয়সে পেরী l’Humanité পত্রিকায় পররাষ্ট্র ও রাজনীতি বিভাগে ডিপার্টমেন্টাল ম্যানেজার হিসেবে যোগ দেন।

১৯৩২ সালে গ্যাব্রিয়েল পেরী Argenteuil আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৩৬ সালে একই আসন থেকে পুননির্বাচিত হন পেরী।

সংসদ সদস্য হিসেবে গ্যাব্রিয়েল পেরী কুটনীতি এবং আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ে সফলতা লাভ করেন।পাশাপাশি তিনি ফ্যাসিবাদ বিরোধী হিসেবে পরিচিতি পান। ইতালীর একনায়ক মুসোলিনি এবং জার্মানীর হিটলারের মতবাদের কঠোর সমালোচক ছিলেন তিনি।

১৯৪০ সালে দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের সময় জার্মানী ফ্রান্স দখলের পর ১৮ মে ১৯৪১ পেরীকে গ্রেফতার করা হয়। আটক অবস্থায় ১৯৪১ সালের ১৫ ডিসেম্বর ফ্রান্সের Fort Mont-Valérien নামক স্থানে গ্যাব্রিয়েল পেরীকে গুলি করে হত্যা করা হয়।

আগ্রাসী জার্মানী বাহিনীর বিরুদ্ধে ফ্রান্সের প্রতিরোধ কমিটির একজন সক্রিয় সদস্য গ্যাব্রিয়েল পেরীকে যুদ্ধবন্দী হিসেবে মানবতার শত্রু হিটলারের বাহিনী হত্যা করে। পেরীর মৃত্যুর পর Paul Éluard এবং Louis Aragon এ মহান বীরের বীরত্বগাথা নিয়ে কবিতা রচনা করেন।

গ্যাব্রিয়েল পেরীর প্রতি সম্মান জানিয়ে Paris এবং Lyon এ দুটি মেট্রো স্টেশনের নাম রাখার পাশাপাশি অসংখ্য বাস স্টেশন এবং রাস্তা ও এভিন্যু’র নাম রাখা হয়েছে ‘গ্যাব্রিয়েল পেরী’।

print

মন্তব্য করুন