বুধবার , 17 অক্টোবর 2018
ব্রেকিং

পলিসি ফোরাম অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভবিষৎ এবং করনীয় শীর্ষক সেমিনার।

সিডনি রিপোর্টারঃ বাংলাদেশ পলিসি ফোরাম অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে ”বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভবিষৎ এবং করনীয়” শীর্ষক সেমিনার গত ২২শে এপ্রিল রবিবার ২০১৮ সিডনির ক্যান্টাবেরি লীগ ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ পলিসি ফোরাম অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি মোঃমোসলেহ উদ্দিন হাওলাদার আরিফের সভাপতিত্বে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ আলোকপাত করেন চালস স্টুয়ার্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক শিবলী মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ। বাংলাদেশের গণতন্ত্রে ভবিষৎ নিয়ে তথ্য বহুল বক্তব্য উপস্থাপন করেন ভয়েস অফ সিডনির মহাপরিচালক ডঃ নার্গিস বানু।

বাংলাদেশ পলিসি ফোরাম অস্ট্রেলিয়ার একে এম আসাদজ্জামানের পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন পলিসি ফোরামের প্রধান উপদেষ্টা মোঃদেলোয়ার হোসেন,কমিউনিটি ব্যাক্তিত্ব লিয়াকত আলী স্বপন,লেবার পাটি ল্যাকেম্বার সভাপতি মোঃলুৎফুল কবির,আমরা বাংলাদেশী সংগঠনের ইব্রাহিম খলিল মাসুদ,লেবার পাটি ক্যামসির সভাপতি হাবিব মোহাম্মদ জকি,বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার সাধারণ সম্পাদক এস এম নিগার এলাহী চৌধুরী,স্প্রুভাত সিডনির সম্পাদক ডঃফারুক আমিন,রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব এম এইচ ইসমাঈল,স্বেচ্ছাসেবকদলের সভাপতি এএনএম মাসুম,স্বাধীনকন্ঠের সম্পাদক মিজানুর রহমান সুমন,নিউসাউথওয়লস এসোসিয়েশনের মোঃহাবিবুর রহমান।

সেমিনারে কমিউনিটি,সাংবাদিক এবং রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের মধ্যে আর ও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯০এর সাবেক ছাএনেতা মোঃরুহুল আমিন,বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার সহ সভাপতি মোঃমোবারক হোসেন,স্বদেশবার্তার সম্পাদক আউয়াল খান,নিউসাউথওয়েলস এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃজামিল হোসেন,যুবদলের সভাপতি ইয়াসির আরাফাত সবুজ,সাধারন সম্পাদক খাইরুল কবির পিন্টু,নিউসাউথওয়েলস বিএনপির সভাপতি ইন্জানিয়ার মোঃকামরুল ইসলাম শামীম,আব্দুস সামাদ শিবলু,মোঃরাশেদ খান,এসএম খালেদ,মোঃআরিফুর রহমান,মোঃজুম্মন হোসেন,নজরুল ইসলাম,জাকির হোসেন রাজু,জেবল হক জাবেদ,মোঃজসিম উদ্দিন,আব্দুল মজিদ,আব্দুল করিম,আনিসুর রহমান,শফিকুল ইসলাম,আব্দুস সামাদ,মিজানুর রহমান সহ আর ও অনেকে।

সেমিনারে বক্তা গন বাংলাদেশের বর্তমান গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা নিয়ে সংকিত,যেই দেশটি স্বাধীন হয়েছিল গণতন্ত্র ভোটাধিকার আইনের শ্বাসন এবং সকলের মানবিক মূল্যবোধ সুপ্রতিষ্ঠিত হওয়ার জন্য সেই দেশে আজ নাই মানুষের ভোটাধিকার,নেই আইনের শ্বাসন,নেই মানুষের কথা বলার স্বাধীনতা,নেই মানবিক মূল্যবোধ। বাংলাদেশ এখন চলছে অঘোষিত স্বৈরতান্ত্রিক সরকারের অধিনে যেখানে ভোট ছাড়াই সরকার গঠিত। যে দেশে প্রধান বিচারপতিকে রাতের অন্ধকারে দেশ থেকে পালাতে হয়।

ডক্টর নার্গিস বানু বলেন,বাংলাদেশের গণতন্ত্র ফিরে পেতে অতিসত্বর দেশনেএী বেগম খালেদা জিয়াকে জামিন দিতে হবে এবং সকল মিথ্যা বানোয়াট মামলা প্রত্যাহার করে একটি নির্দোলীয় সরকারের অধিনে সকলের অংশ গ্রহনের মাধ্যম সংসদ নির্বাচনেই সকল সমস্যা সমাধানের একমাএ পথ।

অধ্যাপক শিবলী আব্দুলাহ বলেন,দেশ এখন স্বৈরচারি ফ্যাসিস্টের কবলে যাদের অগণতান্ত্রিক ব্যবস্থাপনায় মানবাধিকার,শিক্ষা ব্যবস্থা,আইন ব্যবস্থা,ব্যাংকিং ব্যবস্থাপনা সকল প্রতিষ্ঠান ধবংসের পথে তাই একটি অহিংসগন আন্দোলনের মাধ্যমে এই ফ্যাসিবাদ থেকে দেশকে রক্ষা করা সময়। তাই আমরা আশা করি বিএনপিই একমাএ রাজনৈতিক দল যারা সকল বিরুধী রাজনৈতিক শক্তিকে একএিত করে এই গণআন্দোলনে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে।

ডক্টর ফারুক আমিন বলেন,দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব আজ ভূলন্ঠিত কথা বলার স্বাধীনতা নেই মানবাধিকার রাজনৈতিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক ও বাক স্বাধীনতা নিয়ন্ত্রিত। বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ড,ঘুম,খুন সীমা ছাড়িয়ে গেছে।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.