সোমবার , 20 আগস্ট 2018
ব্রেকিং

বিমান দুর্ঘটনা থেকে প্রাণে বাঁচলেন রাহুল গান্ধী

অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন ভারতের কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। আজ শুক্রবার তাকে বহনকারী বিমানে গুরুতর যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়। তবে অল্পের জন্য বড় ধরনের দুর্ঘটনার কবল থেকে রক্ষ পেয়ে নির্বিঘ্নেই দিল্লি থেকে কর্নাটকের হুগলি বিমানবন্দরে পৌঁছেছেন তিনি।

কংগ্রেস সভাপতিকে বহনকারী জেট প্লেনে এমন গুরুতর যান্ত্রিক বিভ্রাটের খবর প্রকাশের পর ভারতজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। বিমানে এ ক্রটি পরিকল্পিত ছিল কিনা খতিয়ে দেখার দাবি জানিয়েছে কংগ্রেস। ঘটনার পরে রাহুল গান্ধীর সঙ্গে কথা বলেছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রী মোদী।

জানা যায়, আজ শুক্রবার সকালে ছোট ফ্যালকন জেট বিমানটির অন্যতম যাত্রী ছিলেন রাহুল গান্ধী। শেষ পর্যন্ত নির্বিঘ্নেই দিল্লি থেকে কর্নাটকে পৌঁছেছেন তিনি। তিন বারের চেষ্টায় হুবলিতে নামে বিমানটি। তাতে ছিলেন কংগ্রেস সভাপতি-সহ পাঁচজন।

ডিজিসিএ জানিয়েছে, ‘অটো-পাইলট’ ব্যবস্থায় সমস্যা হওয়ায় ‘ম্যানুয়াল’ মোডে নিরাপদ অবতরণ করেছেন পাইলট। এই ধরনের ঘটনা ‘অস্বাভাবিক নয়’। কিন্তু সন্তুষ্ট নয় কংগ্রেস।

দলের মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা বলেন, এসপিজি-র নিরাপত্তা পাওয়া কোনো ব্যক্তির উড়ানের আগে পাইলট এবং বিমান সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জমা দেওয়া হয় ডিজিসিএ এবং এসপিজি-র কাছে। তারা ছাড়পত্র দিলেই উড়ান পরিকল্পনা চূড়ান্ত হয়। আমাদের আশা, কর্নাটক পুলিশ এবং ডিজিসিএ-র ডিজিরা তদন্ত করে জানাবেন, এই ঘটনায় কোনো ব্যক্তির হাত ছিল কি না।

বিধানসভা ভোটের প্রচারে শুক্রবার সকাল ৯টা ২০টার দিকে হুবলি রওনা হন রাহুল। আবহাওয়া ভালই ছিল। পৌনে ১১টার দিকে বিমানে দেখা দেয় ক্রটি। সুরজেওয়ালা জানিয়েছেন, জোরালো একটা শব্দের পরে অটো পাইলট বিকল হয়ে ধাক্কা খেয়ে নীচে পড়তে থাকে বিমানটি। ২-৩ মিনিটের জন্য রেডার থেকেও মুছে যায় সেটা।

কর্নাটকের ডিজি ও আইজির কাছে লিখিত অভিযোগে রাহুল গান্ধীর সহযোগী কৌশল বিদ্যার্থী বলেছেন, এমন কোনো প্রযুক্তিগত বিভ্রাটের কারণে ঘটনাটি ঘটেছে, যার ব্যাখ্যা মেলেনি। তিনি বলেন, সকলের প্রাণ যেতে বসেছিল। কিন্তু রাহুল ধৈর্য রেখে পাইলটের পাশে ছিলেন, যাতে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া যায়।

কংগ্রেসের এক নেতা জানান, এর আগেও গান্ধী পরিবারে এভাবে প্রাণ গেছে। রাহুলের প্রাণনাশের কোনো চেষ্টা হয়েছিল কি না, তার যথাযথ তদন্ত হওয়া উচিত।

বিষয়টি রীতিমতো স্পর্শকাতর বলে কোনো মন্তব্য করেনি বিজেপি। কিন্তু বিজেপির কয়েকজনের বক্তব্য, বিষয়টিকে রাজনৈতিক রং দেওয়া হচ্ছে কি না, তা-ও ভাবা দরকার। রাহুল গান্ধী দলের ইস্তাহার প্রকাশের জন্য শনিবারও কর্নাটকেই থাকবেন বলে জানা গেছে।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.