বৃহস্পতিবার , 9 এপ্রিল 2020
ব্রেকিং

এমপি সুবিদ আলীর বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ

 

photo-1471863138প্রয়াত সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানকে প্রথম রাষ্ট্রপতি বলার অভিযোগে আওয়ামী লীগদলীয় সংসদ সদস্য (এমপি) মোহাম্মদ সুবিদ আলী ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা মানহানির মামলা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যপদ শিকদারের আদালতে মামলাটি করেন দাউদকান্দি উপজেলার যুবলীগের নেতা জিলানী সরকার।

বাদী সকালে বিচারকের কাছে ফৌজদারি কার্যবিধির ২০০ ধারা মোতাবেক জবানবন্দি দেন। জবানবন্দি গ্রহণ শেষে বিচারক বিকেল সোয়া ৩টায় মামলাটি শেরে বাংলানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন।

গত ১৭ আগস্ট সংসদীয় কমিটির বৈঠকে কুমিল্লা-১ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সুবিদ আলী ভূঁইয়া প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানকে দেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি বলে মন্তব্য করেছিলেন বলে একাধিক সংসদ সদস্য সংবাদ মাধ্যমকে জানান। এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

পরে সুবিদ আলী ভূঁইয়া সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে বলতে চাই, আমি জিয়াউর রহমানকে প্রথম রাষ্ট্রপতি কখনোই বলি নাই। আমার বক্তব্যের কোনো পর্যায়েই এ ধরনের উদ্ধৃতি ছিল না।

বৈঠকের আলোচনার বক্তব্য সংসদে রেকর্ডকৃত আছে। আমি যদি জিয়াউর রহমানকে প্রথম রাষ্ট্রপতি বলে থাকি, তা যদি কেউ প্রমাণ করতে পারেন তাহলে আমি রাজনীতি থেকে অবসর গ্রহণ করব- ইনশা আল্লাহ।’

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের এই সংসদ সদস্য বলেন, ‘আমার আর খাইয়া কাজ নাই। এইগুলারে আমি গুরুত্ব দেই না। রাজনীতি করলে লোকে বলবেই, রাজনীতি করতে আস, দেখ।’

বিএনপি চেয়ারপাসন খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী থাকার সময় সুবিদ আলী ভূঁইয়া সশস্ত্র বাহিনীর প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার (পিএসও) ছিলেন।

চাকরি শেষে বিএনপির মনোনয়ন চেয়েও না পেয়ে ২০০১ সালে কুমিল্লার দাউদকান্দি (কুমিল্লা-১) থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরেছিলেন। এরপর তিনি আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে ২০০৮ সালে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে হারিয়ে সংসদ সদস্য হন।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.