রবিবার , 8 ডিসেম্বর 2019
ব্রেকিং

সৌদি প্রবাসী খাদিজার বাবা মাসুক মিয়ার আকুতি

সেলিম আহমেদ সৌদি আরব প্রতিনিধিঃ

vlcsnap-2016-10-04-23h19m25s922

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহসম্পাদক বদরুল আলম গতকাল বিকেলে সিলেট এমসি কলেজে ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা দিয়ে বের হওয়ার পর খাদিজা বেগম নার্গিসকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে আহত করে । সিলেট সরকারী মহিলা কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী খাদিজা আক্তার নার্গিসকেউপর নরপশু বদরুলের জনসম্মুখে ধারালো চাপাতির হামলার প্রতীবাদ ও তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন সৌদি আরব প্রবাসী বাংলাদেশীরা ।

এদিকে বদরুলের কঠিন শাস্তি দাবি জানিয়েছেন খাদিজার বাবা । খাদিজার বাবা সৌদি আরব জেদ্দা প্রবাসী মাসুক মিয়া বলেন এমন ভাবে তাকে শাস্তি  দেয়া হোক যেন আর কারো মেয়ে বা বোনের সাথে এমন জঘন্য কাজ না হয়, এসময় তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন,খদিজার বাবা বলেন আমার পরিবার নিরাপদে নেই তাই তিনি দেশে ফেরছেন । উল্লেখ্য, গত সোমবার বিকেলে দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা দিতে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে গিয়েছিলেন সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ডিগ্রি পাসের ছাত্রী খাদিজা। পরীক্ষা দিয়ে বেরিয়ে আসার সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক বদরুল আলম (২৭)। তার গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার সুনাইঘাতি গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের সাইদুর রহমানের ছেলে। বদরুল বর্তমানে শাবির শাহপরান হলে থেকে লেখাপড়া করতেন।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.