বৃহস্পতিবার , 21 নভেম্বর 2019
ব্রেকিং

আমরা লজ্জিত নই: সিইসি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলছেন, ভোট নিয়ে তিনি তৃপ্ত-সন্তুষ্ট। ভোটে কোনো অনিয়ম হয়নি। ভোটে তাঁরা লজ্জিত নন। একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হয়েছে। সোমবার বিকেল ৪টার দিকে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে ভোটগ্রহণ পরবর্তী ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ সব কথা বলেন।

সাংবাদিকেরা কে এম নূরুল হুদাকে প্রশ্ন করেছিলেন, নির্বাচন যেভাবে হয়েছে তাতে কি আপনারা সন্তুষ্ট নাকি লজ্জিত?

প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেছেন, বিপুল ভোটার উপস্থিতি ছিল। তারা বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ভোট দিয়ে নতুন সরকার গঠনের সুযোগ করে দিয়েছে। দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমে যা দেখেছি তাতে মনে হয়েছে জাতি গতকাল ভোট উৎসবে মেতেছিল। দু-একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া বড় ধরনের কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। ১৪ জনের প্রাণহানি ঘটেছে সে জন্য আমরা দুঃখিত।

নির্বাচন কমিশনার বলেন, এবারের নির্বাচনে ৮০ শতাংশের মতো লোক ভোট পড়েছে। অনিয়মের কারণে ১৬টি কেন্দ্রের ভোট বন্ধ করা হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২ আসনের ফল স্থগিত রাখা হয়েছে। নির্বাচনে সব দলের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। সেনাবাহিনী, পুলিশ, র‍্যাব, বিজিবিসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তায় নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। সে জন্য তাদের ধন্যবাদ।

সাংবাদিকের প্রশ্ন করেন, প্রশ্ন ছিল, একটি দল চার লাখ ভোট পেয়েছে, আরেক দল ৪০০ ভোট পেয়েছে, শক্তির দিক থেকে দুটি সমান সমান দলে এত পার্থক্য কীভাবে হয়? এ ছাড়া বিরোধীরা নির্বাচন বাতিল দাবি করে নতুন নির্বাচনের দাবি করছেন।

সিইসি বলেন, ‘এটা আমাদের কাছে কিছুই না। জনগণ ভোট দিয়েছে তাই ভোটের এত পার্থক্য। সুতরাং, নতুন করে আমরা নির্বাচন দেব না। গণমাধ্যম, টেলিভিশন, পত্রপত্রিকায় আমরা দেখেছি, কোনো অনিয়ম হয়নি। এখন পর্যন্ত কোনো অনিয়মের অভিযোগও পায়নি। পেলে তদন্ত করে দেখব।

আগের রাতে ব্যালটে সিল মারার অভিযোগ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘অভিযোগ সম্পূর্ণ অসত্য।’

(সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলছেন, আমরা আশা করি, নতুন সরকার দেশকে সমৃদ্ধির দিকে নিয়ে যাবেন।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.