রবিবার , 8 ডিসেম্বর 2019
ব্রেকিং

নবকণ্ঠ পরিবারের পক্ষ থেকে সাত্তার আলী সুমনকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা

সালাহ্‌ উদ্দিন খোকন :

নশ্বর এই পৃথিবীতে মানুষ বেঁচে থাকে তাঁর সৃষ্টিশীল কর্মের মাধ্যমে। কেননা যুগে যুগে হাজারো মনীষী এখনো অমর হয়ে আছেন তাঁদের মানবহিতৈষী কাজের মাধ্যমে। যেমন সক্রেটিস, মাদার তেরেসার মতো মানুষেরা আজীবন মানবকল্যাণে নিজেদের বিলিয়ে দিয়েছেন। তাঁরা কখনোই নিজেদের প্রচার চাননি। অথচ সারা বিশ্বে তাঁরা আজ অমর হয়ে আছেন। একইভাবে ফ্রান্সের বাংলা কমিউনিটিতে সে রকমই মানবহিতৈষী একজন জনদরদি মানুষ আছেন, যিনি সম্পূর্ণ প্রচারবিমুখ। নিজেকে প্রচারের আড়ালে রেখে ফ্রান্সের বাংলা কমিউনিটিকে তিনি এ দেশের মূলধারার সাথে একীভূত করতে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছেন। বাংলা কমিউনিটির যেকোনো সংগঠনের কেউ কোনো বিপদে পড়লে কিংবা কেউ মৃত্যুবরণ করলে সর্বাগ্রে ছুটে যান তিনি। নিঃস্বার্থভাবে সেবা করেন; আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেন তাদের। তাঁর কাছে কোনো ধরনের সহযোগিতা চেয়ে নিরাশ হয়েছেন, এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া ভার। আজন্ম মানবকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ এই ব্যক্তির নাম সাত্তার আলী সুমন।

আজ তাঁর শুভ জন্মদিন।

নবকণ্ঠ পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁর প্রতি অনেক অনেক শুভেচ্ছা। সাত্তার আলী সুমনের মতো মানুষের জন্ম হয়েছে বলেই যুগে যুগে ‘কমিউনিটি’ শব্দটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ফ্রান্সের মতো বিশ্বের ব্যয়বহুল ও বিলাসী শহরে অবস্থান করেও তিনি নিজেকে বিলাসিতায় না ভাসিয়ে সারাক্ষণ ভাবতে থাকেন কীভাবে সাধারণ মানুষের জীবনে অর্থনৈতিক পরিবর্তন ঘটানো যায়; কীভাবে কমিউনিটির সব মানুষকে সুখী-সমৃদ্ধ করা যায়। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে, জনহিতকর কাজের পাশাপাশি তিনি একজন অসাধারণ শিক্ষানুরাগী ও সমাজ দার্শনিক। অবাক হওয়ার মতো বিষয় হচ্ছে, এত সব হিতৈষী কাজের পরও তিনি অত্যন্ত সজ্জন প্রকৃতির একজন মানুষ। তাঁর সদা হাস্যোজ্জ্বল মুখ, দৃঢ় আত্মপ্রত্যয়ী মনোভাব, বিনয়ী বাক্যালাপ ও তীক্ষ্ণ বুদ্ধিমত্তা তাঁকে ফ্রান্সের কিংবদন্তীর পর্যায়ে নিয়ে গেছে। মানুষের কল্যাণচিন্তাই তাঁর জীবনের মহান ব্রত।

আমরা চাই, যুগে যুগে মানবকল্যাণের মহান ব্রত নিয়ে সাত্তার আলী সুমনের মতো অনন্য মানুষের জন্ম হোক। তাহলেই দেশ, জাতি ও সমাজ পাবে আলোর দিশারী এবং অকুতোভয় কাণ্ডারি। তিনি দীর্ঘজীবন লাভ করুন এই প্রত্যাশা আমাদের।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.