শনিবার , 16 নভেম্বর 2019
ব্রেকিং

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ছাত্রলীগ ইতালী শাখার উদ্যোগে আলোচনা সভা

মেহেনাস তাব্বাসুম শেলি রোম প্রতিনিধিঃ

সামরিক শাসক জিয়াউর রহমানের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ১৯৮১ সালের ১৭ মে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন করেছিলেন বঙ্গবন্ধুকন্যা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ইতালী শাখার আয়োজনে জননেত্রী শেখ হাসিনার ঐতিহাসিক ১৭ই মে সেই স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের ৩৯তম বার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভা, ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। গতকাল ২৩শে মে বৃহস্পতিবার রাজধানীর রোমের ফুড অব রোমা রেস্টুরেন্টে ছাত্রলীগ ইতালী শাখার উদ্যোগে এই আলোচনা সভা ও ইফতার দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

ছাত্রলীগ ইতালী শাখা কতৃক আয়োজিত সভায় সংগঠনের সিনিয়র সহ সভাপতি অনিক হাওলাদারেদ সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মেহেদী হাসান রিয়াদের পরিচলনায় শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্যে রাখেন ছাত্রলীগ ইতালী শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলি রেজা রাজু, প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইয়াসিন আরাফাত, সম্মানিত সদস্য আজিজুল শরিফ, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক নয়ন হাওলাদার, ত্রান ও দূর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক রাইয়ান, এছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা ছাত্রলীগের মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষণা বিষয়ক উপ সম্পাদক খান ফয়সাল ছাত্র নেতা সানজিত, টিটু, নজরুল, সহ আরো অনেকেই। বক্তারা তাদের বক্তব্যেতে বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশে না ফিরলে আজকের বাংলাদেশ হতো না।

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর দেশের চরম সঙ্কটে জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরে আওয়ামী লীগের হাল ধরেছিলেন। শেখ হাসিনা দেশে ফিরে আসেন বলেই ‘জাতির জনক’ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হত্যার বিচার হয়েছে। শেখ মুজিবকে স্মরণ করেই শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়ন-অগ্রগতিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে তারা আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই বাংলাদেশ একদিন ইউরোপের মতো উন্নত-আধুনিক রাষ্ট্রে পরিণত হবে।

এসময় অনুষ্ঠানে ফোন কনফারন্সে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী সোভোন, সাধারন সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। ফোন আলাপে তারা বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা স্বদেশ প্রত্যাবর্তন করেছিলেন বলে আজ দেশের এই উন্নয়নের অগ্রগতি বাংলাদেশ এগিয়ে চলছে এই ধারাকে অব্যাহত রাখতে প্রত্যেক প্রবাসীকে অতন্দ্র প্রহরীর ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে হবে। স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে এটিই হোক সকলের সংকল্প। অনুষ্ঠানে সমাপনি বক্তব্যতে সহ সভাপতি অনিক হাওলাদার বলেন, গণতন্ত্রের মানসকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালি করতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ইতালী শাখার সকল কে এক সাথে কাঁধে কাঁধে মিলিয়ে কাজ করার আহবান জানান এবং তিনি দিক নির্দেশনা মূলক পরামর্শ মতামত দেন। পরিশেষে গণতন্ত্রের মানসকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ দোয়া এবং মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা করে দোয়া করা হয়।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.