বৃহস্পতিবার , 20 ফেব্রুয়ারী 2020
ব্রেকিং

মালয়েশিয়ায় অবৈধদের বৈধকরণ প্রক্রিয়া শুরু

2সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের youtube channel
মালয়েশিয়ায় অবৈধদের বৈধকরণ প্রক্রিয়া কাল থেকে শুরু হচ্ছে। সে দেশের সরকার বৈধ হওয়ার জন্য নিবন্ধনের সুযোগ দিয়েছে। মালয়েশিয়ার সরকারি সংবাদ সংস্তা সত্রে জানা গেছে। বিভিন্ন দেশের ২০ লাখ অনিবন্ধিত কর্মী এই প্রক্রিয়ায় বৈধতা পাবেন। এর মধ্যে বাংলাদেশের প্রায় সাড়ে ৩ লাখের বেশি অবৈধ কর্মী রয়েছেন। এ দফায় কোন কর্মী নিবন্ধন না করলে-তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোন প্রকার দালাল এই প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত হতে পারবে না। গত ৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানী পুত্রজায়ায় মন্ত্রণালয়ের বৈঠক শেষে দেশটির উপ-প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জাহিদ হামিদি এই ঘোষণা দেন।
পুরো মালয়েশিয়াতেই নিবন্ধনের কাজ চলবে। তবে সাবাহ ও সারওয়াক প্রাদেশিক সরকার নিজেরা এই অনলাইন প্রক্রিয়া বাস্তবায়ন করবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রটি জানিয়েছে। এ ছাড়া অনলাইনে নিবন্ধিত হতে পারবেন কর্মীরা। সে দেশে অনথিভুক্ত বিদেশী কর্মীদের নিবন্ধন(জবযরৎরহম)কর্মসূচির অনলাইন পদ্ধতির মাধ্যমে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আগামীকাল থেকে বাস্তবায়ন করা হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।
তিন মাসের মধ্যে মালিকরা আবেদন করলে তাদের কোন পেনাল্টি চার্জ দিতে হবে না। তিন মাস এর কার্যকারিতা দেখবে সংশ্লিষ্টরা। এরপর সময় বাড়ানোর প্রয়োজন হলে সংশ্লিষ্ট বিভাগ সেই ঘোষণা দেবে । নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে কর্মীদের নিবন্ধিত না করলে ওই মালিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। মন্ত্রণালয়ের পোর্টাল ৎবযরৎরহম.রসর.মড়া.সু,এ বিস্তারিতভাবে ংঢ়বষষং আউট করা যাবে. এবং মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগের  এই নাম্বারে ০৩-৮৮৮০ ১৫৫৫ এ নাম্বারে সপ্তাহের সব দিন  সকাল ৮ টা থেকে ১১টা  পর্যন্ত সপ্তাহের সব দিন নিবন্ধন প্রক্রিয়া চলবে ।
এদিকে লেভি বাড়ানোর চিন্তা থেকে সরে এসে সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রী আহমদ জাহিদ হামিদির সঙ্গে সে দেশের শিল্প প্রতিষ্ঠান মালিক ও এনজিওদের বৈঠকের পর এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানো হবে।
উল্লেখ্য, গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে মালয়েশিয়ায় কর্মরত বিদেশি শ্রমিকদের ভিসার খরচ (লেভী) বাড়িয়ে দ্বিগুণ করার সিদ্ধান্ত গ্রহন হলে। এতে তীব্র আপত্তি জানায় মালয়েশিয়ার শিল্প প্রতিষ্ঠান সমুহের মালিকরা।
এ বিষয়ে বাংলাদেশ দূতাবসের কাউন্সিলর (শ্রম) মো: সায়েদুল ইসলাম জানান,  মালয়েশিয়া সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে লেভী বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হবে।
মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, এর আগেও মালয়েশিয়া সরকার অবৈধদের বৈধ হওয়ার সুযোগ দিয়েছিল। তখন বহু শ্রমিকের পাসপোর্ট, টাকা নিয়ে দালালরা সটকে পড়ে। তাই দেশটিতে অবস্থানরত অবৈধ বাংলাদেশিদের দালালের সঙ্গে যোগাযোগ না করে সরাসরি হাইকমিশনে যোগাযোগ করতে তিনি অনুরোধ করেন। তিনি বলেন, যারা এখন ও পাসপোর্ট করেননি তাদের দ্রুত পাসপোর্ট করতে হবে। কুয়ালালামপুরে বাংলাদেশ হাইকমিশন এসব শ্রমিকের জন্য নতুন পাসপোর্ট ইস্যু করবে। এবারই শেষ সুযোগ বলে মালয়েশিয়া সরকার জানিয়ে দিয়েছে।

print

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.