Monday , 8 March 2021
Breaking

অনুমতি ছাড়া ইউরোবাংলা টিভি’র নাম ও লোগো ব্যবহারের প্রেক্ষিতে প্রতিবাদ

euro-bangla-tv-television-europe-bangla-channel

অনুমতি ছাড়া ইউরোবাংলা টিভি’র নাম ও লোগো ব্যবহারের প্রেক্ষিতে প্রতিবাদ

সাফল্যের ৫ম বর্ষ পূর্তির মুহুর্তে সম্প্রতি কতিপয় অসাধু ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান কর্তৃক অনুমতি ছাড়া বেআইনীভাবে ইউরোবাংলা টিভি’র নাম ও লোগো ব্যবহার করে ফেসবুক পেজ ও অন্যান্য মাধ্যমে প্রচারণা চালানো, অর্থ সংগ্রহ সহ নানা রকম খবর পাওয়া যাচ্ছে। বাংলাদেশে এমন একটি ঘটনার বিষয়ে প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ইউরোবাংলা টিভি’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবু তাহির ও সহকারি ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মাদ ওবায়দুল কঠোর প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন “এভাবে বিনা অনুমতিতে ইউরোবাংলা টিভি’র নাম ও লোগো ব্যবহার বে-আইনী ও অনভিপ্রেত”।

২০১৬ সালে চালু হওয়া টেলিভিশন চ্যানেলটির পরীক্ষামূলক সম্প্রচার শেষে ৩১ মে ২০১৯ সালে, প্যারিস সফররত মাননীয় সমাজকল্যান মন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু কর্তৃক উদ্বোধনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে ইউরোবাংলা টেলিভিশন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাননীয় মন্ত্রী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ঠ সাংবাদিকবৃন্দ ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশের রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

বাংলাদেশে কিছু ভুঁইফোড় নাম সর্বস্ব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান ইউরোবাংলা টেলিভিশন নামে নতুন কিছু প্রতিষ্ঠা করা, কার্যক্রম চালানো ও অর্থ সংগ্রহের খবরে বিস্ময় প্রকাশ করে প্রতিষ্ঠানটির দেয়া বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “কে বা কারা অনুমতি ছাড়া ইউরোবাংলা টেলিভিশন নাম ব্যবহার করে প্রচারণা ও অর্থ সংগ্রহের কার্যক্রম চালাচ্ছেন- এটি অবশ্যই বেআইনী, নিন্দনীয় ও দুঃখজনক”- বলেন আবু তাহির।

ফ্রান্সের প্যারিসে অবস্থিত একমাত্র স্টুডিও থেকে টেলিভিশনটি’র সকল অনুষ্ঠান ও কার্যক্রম চলছে ৫ বছর ধরে। শীঘ্রই ঢাকায় স্টুডিও স্থাপনের ব্যাপারে প্রশাসনের সাথে আলোচনা চলছে। এমতাবস্থায় অনুমতি ছাড়া নাম ও লোগো ব্যবহার করে যারা মানুষকে বিভ্রান্ত ও ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা করছেন, তাদেরকে এ ধরণের ন্যাক্কারজনক কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার আহবান জানানো হয়েছে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে। সেই সাথে তাদের কোনো কার্যক্রমের দায়ভার ইউরোবাংলা টেলিভিশন ও সংশ্লিষ্ট কেউ নেবে না বলেও পরিষ্কারভাবে ঘোষনা করেছেন মোহাম্মাদ ওবায়দুল। তাই বিভ্রান্তিতে না পড়ার জন্য চ্যানেলের একমাত্র অথেনটিক ওয়েবসাইট ইউরোবাংলা ডট টিভি -কে অনুসরন করতে বলা হয়েছে দর্শক ও ভক্তদের।

উল্লেখ্য, শুরু থেকেই www.eurobangla.tv এই অথেনটিক ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইনে সামাজিক প্ল্যাটফর্মে পৃথিবীর প্রায় সব মহাদেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা প্রবাসীদের খবর, অনুষ্ঠান, টক-শো, গঠনমূলক আলোচনা, প্রবাসী শিশু-কিশোরদের জন্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান প্রচার করে আসছে চ্যানেলটি। এই টেলিভিশনে প্রতিদিনই রয়েছে খবর। প্রবাসী বাংলাদেশিদের সামাজিক বিনোদনের জন্য রয়েছে সেরা নির্মাতাদের নাটক, টেলিফিল্ম ও চলচ্চিত্র। সচেতন বাংলাদেশিদের জন্য রয়েছে ইউরোপ, আমেরিকা, বাংলাদেশ সহ আন্তর্জাতিক সমসাময়িক বিষয়ের ওপর ‘টক শো’ এবং বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠান। এসব অনুষ্ঠানে প্রবাসী বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব ছাড়াও বাংলাদেশ থেকে বিদেশে বেড়াতে আসা অতিথিবৃন্দ অংশ নিয়ে থাকেন।

ইমিগ্রেশন, চাকুরীর খবর, ক্যারিয়ার গঠন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, আইন ইত্যাদি বিষয়ভিত্তিক অনুষ্ঠানও নিয়মিত প্রচার করা হয়। যা চ্যানেলটির সংশ্লিষ্ট ইউটিউব চ্যানেলেও যুক্ত করা হয়। দর্শক-শুভাকাঙ্খীরা, ফেসবুকইউটিউব, টুইটার ও অন্যান্য সামাজিক মাধ্যমেও ইউরোবাংলা টিভিকে অনুসরন করতে পারেন যেগুলোর লিংক মূল ওয়েবসাইটে দেয়া আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.